বাংলাদেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কমেছে। বিয়ের মৌসুম শেষে সব ধরনের সোনার দাম ভরিতে এক হাজার টাকার বেশি কমেছে।

সোমবার থেকে নতুন এই দাম কার্যকর হবে বলে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি জানিয়েছে।

শীতের শুরু থেকে কয়েক মাসের মধ্যে সোনার দাম কয়েক দফায় বেড়ে ভরি ৫০ হাজার টাকার উপরে ওঠে। সর্বশেষ সোনার দাম বাড়ানো হয়েছিল গত ২৫ জানুয়ারি।

 

এখন সবচেয়ে ভালো মানের সোনার দাম ভরিতে (১১.৬৬৪ গ্রাম) এক হাজার ২৮৩ টাকা কমে হচ্ছে ৫০ হাজার ৭৫২ টাকা। অন্যান্য মানের সোনার দামও প্রায় একই হারে কমেছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম কমায় স্থানীয় বাজারেও দাম কমানো হয়েছে বলে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দীলিপ কুমার আগারওয়াল জানিয়েছেন।

তিনি রোববার বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের মূল্য হ্রাস পাওয়ায় সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোনার দাম কামানো হয়েছে। আগামী সোমবার থেকে নতুন এই দর কার্যকর হবে।

নতুন দর অনুযায়ী, প্রতি ভরি সবচেয়ে ভালো মানের সোনা (২২ ক্যারেট) ৫০ হাজার ৭৫২ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হবে ৪৮ হাজার ৬৯৭ টাকা। ১৮ ক্যারেট সোনা বিক্রি হবে ৪৩ হাজার ৬২৩ টাকা। সনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হবে ২৬ হাজার ৪১৯ টাকায়।

রোববার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৫২ হাজার ২৫৫ টাকায় বিক্রি হয়। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হয় ৪৯ হাজার ৯২২ টাকায়। ১৮ ক্যারেটের সোনা বিক্রি হয় ৪৪ হাজার ৬৭৩ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ছিল ২৭ হাজার ৪১০ টাকা।

এই হিসাবে ২২ ক্যারেট সোনার দাম প্রতি ভরিতে কমেছে এক হাজার ২৮৩ টাকা। ২১ ক্যারেটে কমেছে এক হাজার ২২৫ টাকা। ১৮ ক্যারেটে কমেছে এক হাজার ৫০ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে কমেছে ৯৫১ টাকা।

 

দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কমল। দেড় মাসের ব্যবধানে এবার ভরি প্রতি সর্বোচ্চ এক হাজার ২৮২ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে। নতুন এ দাম সোমবার থেকে কার্যকর হবে। আজ রবিবার বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

 

বাংলাবিজনিউজ/আরাফ