‘ব্যাসেল থ্রি’ অনুসারে রেগুলেটরি মূলধন বাড়াতে ৪০০ কোটি টাকার সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ। এজন্য সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রকদের অনুমোদন প্রয়োজন হবে ব্যাংকটির। স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

 

৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৫ হিসাব বছরের জন্য ১৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দেয় ন্যাশনাল ব্যাংক। বার্ষিক শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয় ২ টাকা ২৬ পয়সা, আগের বছর যা ছিল ১ টাকা ৫৬ পয়সা। ২০১৪ সালে ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দিয়েছিল ব্যাংকটি।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) ব্যাংকের ইপিএস দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ২৪ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৭৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য দাঁড়ায় ১৬ টাকা ৮১ পয়সা।

দীর্ঘমেয়াদে ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের (এনবিএল) ঋণমান ‘ডাবল এ’ ও স্বল্পমেয়াদে ‘ইসিআরএল-টু’। সর্বশেষ নিরীক্ষিত-অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও হালনাগাদ অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে গত জুনে এ প্রত্যয়ন করে ইমার্জিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড।

১৯৮৪ সালে শেয়ারবাজারে আসা ন্যাশনাল ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধন ৩ হাজার কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ১ হাজার ৯৭৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। রিজার্ভ ১ হাজার ৩৬৮ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

 

বাংলাবিজনিউজ/আনোয়ার