পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে নতুন নোট বিনিময় শুরু হয়েছে। সোমবার মতিঝিলসহ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সব শাখা অফিস থেকে নতুন নোট ছাড়া হয়। রাজধানীর ১৪টি শাখার বিশেষ কাউন্টার থেকেও বিনিময়ের মাধ্যমে নতুন নোট নেওয়া যাচ্ছে। ঈদের আগে আগামী ২০ আগস্ট পর্যন্ত নোট বিনিময় করা যাবে। অবশ্য প্রথম দিন খুব একটা ভিড় ছিল না বলে জানা গেছে।

 

বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, কোনো ব্যক্তি ১০, ২০, ৫০ ও ১০০ টাকা মূল্যমানের একটি করে প্যাকেট নিতে পারবেন। এর মানে সর্বোচ্চ ১৮ হাজার টাকা নেওয়া যাবে। তবে কাউকে একই মূল্যমানের একটির বেশি প্যাকেট তথা ১০০ পিস নোটের বেশি দেওয়া হবে না। কেউ চাইলে যে কোনো অংকের ধাতব মুদ্রা নিতে পারবেন। একই ব্যক্তি যেন একই মূল্যমানের একাধিক বান্ডিল নিতে না পারেন, সে লক্ষ্যে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে টোকেন সংগ্রহ করে নতুন নোট দেওয়া হচ্ছে।

নতুন নোট দিতে রাজধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকে বিশেষ কাউন্টার খোলা হয়েছে। এ ছাড়া নতুন নোট পাওয়া যাচ্ছে যাত্রাবাড়ীর ন্যাশনাল ব্যাংক, জাতীয় প্রেস ক্লাবের অগ্রণী ব্যাংক, বসুন্ধরা সিটি (পান্থপথ) শাখার সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, ধানমণ্ডিতে ব্যাংক এশিয়া, উত্তরায় ঢাকা ব্যাংক, জনতা ব্যাংকের আবদুল গণি রোডে অবস্থিত করপোরেট শাখা, সিটি ব্যাংকের মিরপুর শাখা, মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের বনানী শাখা, সোনালী ব্যাংকের রমনা করপোরেট শাখা, ওয়ান ব্যাংকের বাসাবো শাখা, আইএফআইসি ব্যাংকের গুলশান শাখা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের মোহাম্মদপুর শাখা এবং রূপালী ব্যাংকের মহাখালী শাখায় নতুন টাকা পাওয়া যাচ্ছে।

 

বাংলাবিজনিউজ/আরাফ