দেশের বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ৫ কোটি টাকার ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড। এরই মাঝে উত্তরাঞ্চলসহ বিভিন্ন জেলার বন্যাকবলিত ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ব্যাংকের স্থানীয় শাখার মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী, নগদ অর্থ ও জীবন ধারণের নানা উপকরণ বিতরণ শুরু করেছে তারা।

 

ব্যাংকের সিএসআর কর্মসূচির আওতায় প্রতি বছর বন্যাসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর মাঝে এই ত্রাণ বিতরণ করে ব্যাংকটি।

ব্যাংকের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার মঙ্গলবার গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন।

পরে তিনি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুরের চর, গাইবান্ধার কামারজানি, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী থানার উদ্দামারী এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত অন্তত ১৫০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন।

ত্রাণ বিতরণকালে ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার বলেন, ‘ইসলামী ব্যাংক আর্তমানবতার সেবায় সর্বদা নিয়োজিত রয়েছে। দেশের মানুষের সামগ্রিক কল্যাণ ও টেকসই উন্নয়নে ইসলামী ব্যাংক নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’ 

তিনি বলেন, এ ব্যাংক সব সময় মানুষের পাশে থেকে তাদের কল্যাণে কাজ করছে এবং ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম বলেন, ‘বন্যা দুর্গতদের সাহায্যার্থে সরকারের আহবানে সাড়া দিয়ে বেসরকারী পর্যায়ে ইসলামী ব্যাংক দেশব্যাপী ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।’

এসময় তিনি এ উদ্যোগে অনুপ্রাণিত হয়ে সার্মথ্যবানদের বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান বলেন, ‘ইসলামী ব্যাংক প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই মানুষের কল্যাণে কাজ করছে। এ ব্যাংক দেশের প্রতিটি পরিবারের প্রয়োজন পূরণের জন্য সর্বদা সচেষ্ট রয়েছে।’

এ সময় ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম, পরিচালক প্রফেসর (ডা.) কাজী শহিদুল আলম, ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, ডেভেলপমেন্ট উইংপ্রধান মো. মোশাররফ হোসাইন, রংপুরজোন প্রধান মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনের সদস্য এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

 

বাংলাবিজনিউজ/আনোয়ার