বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) ২০০ কোটি ( বিলিয়ন) ডলার অতিক্রম করেছে

 

২০১৫ সালে বাংলাদেশে এফডিআই এসেছে ২২৩ কোটি ৫০ লাখ ডলারের (.২৩ বিলিয়ন) যা ২০১৪ সালের চেয়ে ৪৪ শতাংশ বেশি ওই বছর এফডিআইয়ের পরিমাণ ছিল ১৫৫ কোটি ১০ লাখ ডলার

বুধবার মতিঝিলে বিনিয়োগ বোর্ডে আঙ্কটাডেরওয়ার্ল্ড ইনভেস্টমেন্ট রিপোর্ট-২০১৬প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সালে দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে যে পরিমাণ এফডিআই এসেছে তার মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়

প্রথম অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত তাদের এই বিনিয়োগের পরিমাণ হাজার ৪২০ কোটি ৮০ লাখ (৪৪.২০বিলিয়ন) ডলার ভারতে গত বছর তার আগের বছরের চেয়ে এফডিআই বেড়েছে ২৭ শতাংশ

প্রতিবেদন বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১৫ সালে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি এফডিআইয়ের পরিমাণ গ্যাস, বিদ্যুৎ পেট্রোলিয়াম খাতে জ্বালানির এসব খাতে বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে ৫৭ কোটি ৪০ লাখ ডলার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে টেক্সটাইল বা তৈরি পোশাক শিল্প খাতে (আরএমজি) এফডিআইয়ের পরিমাণ ৪৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার

এছাড়া টেলিকমিউনিকেশন খাতে ২৫ কোটি ৫০ লাখ ডলার, ব্যাংকিং খাতে ৩১ কোটি ডলার, খাদ্যপণ্যে ১২ কোটি ৫০ লাখ ডলার, কৃষি মত্স্য খাতে কোটি ৫০ লাখ ডলার এবং অন্যান্য খাতে ৫০ কোটি ৩০ লাখ ডলারের বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে

অনুষ্ঠানে প্রতিবেদনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম ইসমাইল হোসেন তিনি বলেন, ২০১৫ সালে বিশ্ব অর্থনীতিতে এফডিআই বেড়েছে ৩৮ শতাংশ বা দশমিক ৭৬ ট্রিলিয়ন ডলার উন্নয়নশীল অর্থনীতিতে এফডিআইয়ের পরিমাণ ৭৬৫ বিলিয়ন ছাড়িয়েছে, যা ২০১৪ সালের তুলনায় শতাংশ বেশি

৩৮০ বিলিয়ন ডলার এফডিআই করে প্রথম স্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র হংকং ১৭৫ বিলিয়ন চীন ১৩৬ বিলিয়ন করে তার পরের অবস্থানে রয়েছে তবে আগামী বছর এফডিআই কমে যেতে পারে বলে মনে করছেন ইসমাইল হোসেন

 

বাংলাবিজনিউজ/আনোয়ার