খেলাপি ঋণের ক্ষেত্রে শীর্ষ ১০ ব্যাংকের ঘাড়ে ৫২ হাজার কোটি টাকার বোঝা। এ ঋণ মোট খেলাপি ঋণের ৬৫ ভাগ। আর ঋণ অবলোপনের ক্ষেত্রে অপর ১০ ব্যাংকের ঘাড়ে ৭০ ভাগ। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। 

ব্যাংকাররা জানিয়েছেন, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীরা ঋণের টাকা সৎব্যবহার করেননি। আবার কেউ কেউ লোকসানের সম্মুখীন হয়েছেন। এ কারণে তারা ঋণ পরিশোধ করতে পারছেন না। খেলাপি ঋণ কমানোর জন্য ঋণ নবায়ন করার জন্য ব্যবসায়ীদেরকে চাপ দিচ্ছেন। কিন্তু ঋণ নবায়ন করার জন্য যে ন্যূনতম এককালীন অর্থ পরিশোধ করতে হয় (ডাউন পেমেন্ট) তা তারা করতে পারছেন না।

Read more ...

ঋণ বিতরণের ক্ষেত্রে অনিয়ম ও যথাযথ জামানত না নিয়ে ঋণ বিতরণ করা হচ্ছে। এসব ঋণ আদায় করতে পারছে না ব্যাংকগুলো। একপর্যায়ে ওই ঋণ খেলাপি হয়ে যাচ্ছে। বছরের পর বছর আটকে যাচ্ছে ব্যাংকের খাতায়। এসব ঋণ আদায়ে মামলা করার নির্দেশনা থাকলেও তা করা হচ্ছে না। মামলা না করেই বেশির ভাগ ক্ষেত্রে তা অবলোপন করা হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ পরিসংখ্যান মতে, গত সেপ্টম্বরের শেষে দেশের ব্যাংকিং খাত এমনি প্রায় ৩৬ হাজার কোটি টাকার খেলাপি ঋণ অবলোপন করা হয়েছে।

Read more ...

তারল্য সংকটের কারণে সরকারের পাওনা রাজস্ব পরিশোধ করতে পারছে না নতুন প্রজন্মের দ্য ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেড। আমানতের তুলনায় ঋণের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় আমানতের ওপর প্রযোজ্য উেস আয়কর ও উেস মূল্য সংযোজন কর (মূসক) পরিশোধে ছয় মাসের সময় চেয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) আবেদন করেছে ব্যাংকটি।

Read more ...

আগ্রাসী ঋণের মুখে লাগাম টেনে দিতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর ফলে সীমার অতিক্রম করে ব্যাংকগুলো যে ঋণ বিতরণ করেছে, তা কমিয়ে আনতে হবে।

একইসঙ্গে আমানতও একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় রাখতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সবশেষ সার্কুলারে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

Read more ...